Watch The Best Educational TV Live Programs & News Update Today

info@newbangla.tv


স্বামীকে যে ৮টি কথা কখনই বলা উচিত নয়

কিছু কথা আছে যা বললে সম্পর্ক নষ্ট হয়ে যায়। আজকের এই ভিডিওটি স্ত্রীদের জন্য। এই ভিডিওতে আলোচনা করা হয়েছে আপনি আপনার স্বামীকে যেসকল কথা বলা থেকে বিরত থাকলে আপনাদের সম্পর্ক থাকবে সুন্দর ও মধুময়।

প্রিয় দর্শক শ্রোতা, নিউ বাংলা চ্যানেলে আপনাকে স্বাগতম। ‘সম্পর্ক সুন্দর করতে করণীয়’ শিরোনামের ভিডিওর কমেন্টে এক বন্ধু জানতে চেয়েছেন ‘সুখী পরিবার গড়তে কী করতে হবে? মূলত সংসারে স্বামী-স্ত্রী দুজনের ভূমিকাই গুরুত্বপূর্ণ। স্বামী একটি পরিবারের আত্মা বা প্রাণ । তাই স্বামীকে খুশী রাখতে পারলেই গড়ে উঠতে পারে একটি সুখী পরিবার। সে কারণে ‘স্বামীকে যে ৮টি কথা কখনোই বলা উচিত নয়’। সে কথাগুলোই আজ আমরা আলোচনা করব।

সম্পর্ক সুন্দর করতে করণীয়

১. কী দিয়েছো কী পেয়েছি:
বিয়ের পর তুমি আমাকে কি দিয়েছো? তোমার কাছ থেকে আমি কি পেয়েছি এ ধরণের কথা কখনোই বলা উচিত নয়। এতে স্বামী সবচেয়ে বেশি কষ্ট পান। বরং আপনি স্ত্রী হিসেবে কি দিতে পেরেছেন সেটাও ভাবুন। তাহলেই গড়ে উঠবে একটি সুখী সংসার।

২. নিজের অতীত সম্পর্কে
প্রত্যেক মানুষেরই কিছু অতীত থাকে। তাই অতীত সম্পর্কে আগ বাড়িয়ে কিছু না বলাই ভালো। আপনার স্বামী যদি জানতে চাই, তাহলে তাকে স্বচ্ছতার সাথে সুন্দর করে বুঝিয়ে বলুন। যাতে সে আপনাকে ভুল না বোঝে।

৩. স্বামীর অতীত সম্পর্কে
স্বামীর অতীত কোনো সম্পর্ক নিয়ে কখনোই আঘাত দিয়ে কথা বলবেন না। তাকে বলুন অতীত ভুলে দুজনে মিলে সুন্দর সংসার গড়ে তোলার স্বপ্ন দেখতে।

৪. পছন্দ-অপছন্দ সম্পর্কে
নিজের যদি কোনো বিষয় পছন্দ না হয় বা কোনো বিষয়ে খুব দুর্বলতা থাকে, তাহলে তা স্বামীকে বোঝানোর চেষ্টা করুন। খেয়াল রাখবেন নিজেদের মধ্যে যেন ভুল বোঝাবুঝি সৃষ্টি না হয়। ভুল থেকেই অবিশ্বাস তৈরি হয়। আর অবিশ্বাস সবকিছু ধ্বংস করে দেয়।

৫. শশুর-শাশুড়ি সম্পর্কে
শ্বশুর-শাশুড়ি সম্পর্কে স্বামীর কাছে কোনো অনুযোগ-অভিযোগ করবেন না। আর তোমার মা, তোমার বাবা, তোমার ভাই, এভাবে সম্পর্ক উল্লেখ করে কখনোই কথা বলবেন না। মনে রাখবেন, আপনিও আপনার বাবা-মা সম্পর্কেও কোনো অভিযোগ পছন্দ করেন না।

৬. আত্মীয়-স্বজন সম্পর্কে
স্বামীর আত্মীয়-স্বজনদের মধ্যে কারো ব্যবহার আপনার ভালো নাও লাগতে পারে। প্রথমেই স্বামীকে না বলে নিজে সমাধান করার চেষ্টা করুন। সম্ভব না হলে স্বামীকে বিষয়টি বুঝিয়ে বলুন। এতে আপনার প্রতি তার #ভালোবাসা বেড়ে যাবে।

৭. ছেলে বন্ধু সম্পর্কে
নিজের কোনো ছেলে বন্ধুর কথা স্বামীকে বলবেন না। আর অতীত ছেলে বন্ধুর কথা আপনি নিজেও ভুলে যান। এতে আপনাদের মধ্যেকার ব্রিজ টলমল করতে পারে। ঠুনকো কোনো কারণে ঝগড়া লেগে গেলে সে আপনাকে অবিশ্বাস করতে পারে। নিজেকে বিশ্বাস্ত করে তুলুন।

৮. খোটা না দেয়া
কোনো মানুষই পরিপূর্ণ নয়। প্রতিটি মানুষেরই কোনো না কোন খুত থাকে। তাই তুমি কালো, তুমি বেটে, এ ধরণের কথা স্বামীকে ভুলেও কখনই বলবেন না। এ কথা একবার বলে ফেললে সে আর কখনো ভুলতে পারবে না। ফলে আপনাকে মন থেকে ভালোবাসতে কষ্ট হবে।