Watch The Best Educational TV Live Programs & News Update Today

info@newbangla.tv


মেয়েদের চুলে মেহেদি পাতা ব্যবহারের সঠিক ৫টি নিয়ম ও উপকারিতা

মেহেদিপাতা চুলের জন্য সকলের কাছেই বেশ জনপ্রিয়। মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) নিজের চুল ও দাড়িতে মেহেদি ব্যবহার করতেন। মেহেদি ত্বক, নখ রঙিন করার পাশাপাশি চুল ঝরঝরে, সুন্দর ও মজবুত করে। আপনি কি জানেন একমাত্র মেহেদি পাতা-ই আপনার চুল পড়া রোধ করতে পারে? কিন্তু মেহেদি পাতার সঠিকব্যবহার ছাড়া ভালো ফলাফল পাওয়া সম্ভব নয়।

পরিচিতি

মেহেদি পাতার ইংরেজি ও ইউনানী নাম ‘হেনা’। যা আরবি ‘হিন্না’ থেকে এসেছে। বৈজ্ঞানিক নাম ল-সনিয়া। ৩ হাজার বছর আগে ব্যাবিলীয় ও সুমেরীয় সভ্যতায় মেহেদি পাতার ব্যবহার শুরু হয়। বতর্মান যুগেও এর ব্যবহারে কোন কমতি নেই বরং দিন দিন বেড়েই চলেছে……..

মেহেদি ব্যবহারের সঠিক ৫টি নিয়ম

চুল পড়া ও চুল পাকা

চুল পড়া ও চুল পাকা এ সময়ের একটি কমন রোগ। ফলে চুল নিয়ে টেনশন নেই এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া ভার। ভারতের ইউনানী চিকিৎসকদের মতে, চুল পড়া ও চুল পাকা বন্ধ করতে ১টি হরতকী ও ১০ গ্রাম মেহেদি পাতা থেঁতো করে এক পোয়া পানিতে সিদ্ধ করুন। সেই পানি ঠাণ্ডা হলে ছেঁকে মাথায় লাগালে দারুণ উপকার পাবেন। এছাড়া খুশকি দূর করতেও এটা কার্যকর ভূমিকা পালন করে।

সাদা চুল কালো

যে কোনো কারণে বা যে কোনো বয়সে কালো চুল সাদা হতে পারে। কিন্তু এটা নিয়ে টেনশন না করে নিয়মিত মেহেদি ব্যবহার করলে ভালো ফল পাবেন। গবেষণায় দেখা গেছে, ২ টেবিল চামচ আমলকীর গুঁড়ো ১ কাপ ফুটন্ত গরম পানিতে ১ টেবিল চামচ রঙ চা ও ২ টি লবঙ্গ দিতে হবে। এবার এই পানিতে পরিমাণ মতো মেহেদি বাটা ব্যবহার করে পেস্ট তৈরি করুন। এবার পেস্টটি চুলে লাগিয়ে রাখুন ২ ঘণ্টা। ২ ঘণ্টা পরে চুল ধুয়ে ফেলুন। এভাবে সপ্তাহে ১ দিন ব্যবহারে সাদা চুল সহজেই কালো হয়ে যাবে।

চুল ঘন-লম্বা করতে

যাদের অল্প বয়েসে চুল পড়ে তারা নিয়মিত মেহেদি ব্যবহার করুন। নতুন করে চুল উঠবে ও খাটো চুল তাড়াতাড়ি লম্বা হবে। গবেষকরা বলেন, ১ কাপ পরিমাণ মেহেদি পাতা বাটা ও ২ টেবিল চামচ নারকেল তেল এবং ২-৩ টেবিল চামচ টক দই ভালোভাবে মেশান। এবার চুলে লাগিয়ে রাখুন ১ ঘন্টা। এরপর শুধু পানিতে চুল ধুয়ে ফেলুন। পরের দিন চুলে শ্যাম্পু করুন। এভাবে মাসে মাত্র ২ বার ব্যবহার করলে নিশ্চিত চুল অনেক ঘন ও লম্বা হবে।

চুলের রুক্ষতা ও আগা ফাটা

মেহেদি চুলের জন্য কন্ডিশনারের কাজ করে বলে চুলের রুক্ষতা ও চুলের আগা ফাটা বন্ধ হয়। জাপানের একদল গবেষক বলেন, ১ কাপ মেহেদি পাতা বাটার সঙ্গে ২ টেবিল চামচ অলিভ অয়েল তেল ও ১ টি ভিটামিন ই-ক্যাপসুল মিশিয়ে নিয়ে চুলে লাগাতে হবে। ১ ঘণ্টা পর শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন । সপ্তাহে ১ দিন ব্যবহারে চুলের রুক্ষতা ও আগা ফাটা একেবারে বন্ধ হবে।

খুশকি দূর করতে

মাথা থাকলে যেমন ব্যথা থাকে তেমনি চুল থাকলে খুশকি থাকবেই। অনেকে এটা নিয়ে বন্ধুদের হাসি তামাশার খোরাক হন। হীনমন্যতায় না ভুগে পরিমাণ মতো মেথি সারারাত ভিজিয়ে রেখে পরের দিন বেটে নিন। এবার সামান্য সরিষার তেল গরম করে এতে মেহেদি পাতা ফেলে দিন। ঠাণ্ডা হলে এই তেলে মেথি বাটা দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন। এই পেষ্ট চুলের গোঁড়ায় বা মাথার ত্বকে লাগান।২ ঘণ্টা পরে চুল ধুয়ে ফেলুন।তাহলে খুশকি মুক্ত হবে আপনার চুল।

বন্ধুরা আরো জেনে রাখা ভালো, যেদিন মেহেদি দিবেন তার আগের দিন চুলে তেল দিন। গাঢ় রং পাওয়ার জন্য ফ্রেশ মেহেদি ব্যবহার করার চেষ্টা করুন। মেহেদির সাথে অতিরিক্ত উপাদান যোগ করবেন না। মেহেদি লাগানোর পর চুলে হেয়ার ক্যাপ ব্যবহার করুন। এতে চুল থেকে মেহেদি কাপড় বা গায়ে পড়বে না।